খুলনায় ভ্যাটদাতা ১৫ প্রতিষ্ঠান পেল সম্মাননা

1670667314.khulna.jpg

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট……..
জাতীয় ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহ উপলক্ষে খুলনায় সর্বোচ্চ ভ্যাটদাতা ১৫টি প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেওয়া হয়েছে।

দিবসটি উপলক্ষে শনিবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে খুলনার খালিশপুরস্থ কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট প্রাঙ্গণে সেমিনার ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক। তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নের স্বার্থে সঠিকভাবে ভ্যাট আদায় গুরুত্বপূর্ণ। ব্যবসায়ীরা আইনের প্রতি দায়বদ্ধ থেকে ভ্যাট দেবেন। একই সাথে রাজস্ব দপ্তরের কর্মকর্তাদেরও ব্যবসায়ীদের সাথে সুন্দর ব্যবহার করতে হবে। বাংলাদেশের নিজের টাকায় পদ্মা সেতুর মতো বৃহৎ উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে এবং উন্নয়নের ক্ষেত্রে বিদেশি সাহয্যের ওপর আমাদের নির্ভরশীলতা কমেছে। বর্তমানে খুলনা সিটি কর্পোরেশন এলাকায় প্রায় দুই হাজার দুইশ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে। এসব উন্নয়ন জনগণের ভ্যাট-ট্যাক্সের টাকায় হচ্ছে। সঠিক নিয়মে ভ্যাট প্রদান করে নাগরিক দায়িত্ব পালন করলে নিজেদের টাকায় দেশকে আরও এগিয়ে নেওয়া সম্ভব।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বর্তমানে বিশ্বের ১৬৬টি দেশে ভ্যাট ব্যবস্থা চালু রয়েছে। বাংলাদেশের জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ২০২১-২২ অর্থবছরে রাজস্ব আহরণে ১৬ দশমিক ০৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে, যেখানে অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে সংগৃহীত ভ্যাটের প্রবৃদ্ধি ছিল ১১ দশমিক ১৯ শতাংশ। ২০২২-২৩ অর্থবছরে দেশের বাজেটে মোট ব্যয়ের আকার ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকা। এর মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের মাধ্যমে আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা তিন লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকা। চলমান অর্থবছরে খুলনা কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটের ভ্যাট আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা তিন হাজার ৪৫৩ কোটি টাকা, যার মধ্যে বিগত পাঁচ মাসে ৮২৭ কোটি টাকা ভ্যাট আদায় সম্পন্ন হয়েছে। যেকোনো করাদাতা এখন অফিসে না এসেও ভ্যাটের জন্য অনলাইনে নিবন্ধন করতে পারেন। ২০২২ সালের ২৮ নভেম্বর পর্যন্ত রাজস্ব বোর্ডে দেশের চার লাখ চার হাজার ৩৭৬টি অনলাইন ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হয়েছে। প্রতি মাসে দাখিল হওয়া ভ্যাটের প্রায় ৮৪ শতাংশ অনলাইন মাধ্যম ব্যবহার করে সম্পন্ন হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট আপিলত ট্রাইব্যুনালের প্রেসিডেন্ট এসএম হুমায়ুন কবীর, মোংলা কাস্টম হাউসের কমিশনার মোহাম্মদ নেয়াজুর রহমান, খুলনা কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট (আপিল) কমিশনারেটের কমিশনার ড. নাহিদা ফরিদী, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) মো. সাজিদ হোসেন ও খুলনা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সহসভাপতি মোস্তফা জেসান ভুট্ট।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খুলনা কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটের কমিশনার মুহম্মদ জাকির হোসেন। অনুষ্ঠানে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন উপ-করকমিশনার বেলাল হোসেন এবং স্বাগত জানান যুগ্ম কর কমিশনার মো. মাজেদুল হক। ভ্যাট দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য ‘উন্নয়নের ভ্যাট নীতি, ভ্যাট দিয়ে গড়বো জাতি’।

২০২১-২২ অর্থবছরে সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারী ১৫টি প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেওয়া হয়। সম্মাননাপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানগুলো মধ্যে খুলনার শিরোমনি বিসিক শিল্প এলাকার মেসার্স খোরশেদ মেটাল ইন্ডাষ্ট্রিজ, দৌলতপুরের সেভ এন্ড সেভ, ঝালকাঠির মেসার্স সাবিহা কেমিক্যাল ওয়ার্কস, পটুয়াখালীর পানজা বিড়ি লিমিটেড, বরগুনার মেসার্স উজ্জল কেমিক্যাল ওয়ার্কস, বরিশালের এমইপি প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং ইন্ডাষ্ট্রিজ, বরিশালের নিউ পার্ক বাংলা, বরিশালের নাদিয়া ফার্নিচার লি:, মোংলার দুবাই বাংলাদেশ সিমেন্ট মিলস লি:, মাদারীপুরের চাঁন বিড়ি ফ্যাক্টরি, মাদারীপুরের মেসার্স সিগমা ট্রেডার্স, মাদরীপুরের হোটেল সার্বিক ইন্টারন্যাশনাল, শরিয়তপুরের বাজাজ ভিলেজ, সাতক্ষীরার বাজাজ সেলস পয়েন্ট এবং সাতক্ষীরার মেসার্স জয়হুন ডেইরি শপ।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top